যে গাছের রক্ত আছে

আমার শৈশব কেটেছে মায়ের মুখে চমকপ্রদ গল্প শুনে। কাহিনীগুলো ভাবাতো। ভাবতাম এমনও সম্ভব? অনেক কুসংস্কারকে ভৌতিক কাণ্ড বলে মনে করতাম। যখন বড় হলাম, তখন এদের পেছনে যে বিজ্ঞান আছে তা ধীরে ধীরে বুঝতে পারলাম।

আমার নানার বাড়ি দেশের উত্তরাঞ্চলের এক গ্রামে। সীমান্তবর্তী এই গ্রামটির পাশে রয়েছে বিশাল এক শালবন। ১৯৪৭ সালের আগে গ্রামের এক কোণে ছিল পরিত্যক্ত এক মন্দির। মন্দিরের পাশে ছিল প্রচুর গাছপালা। পাকিস্তান আমলে মন্দিরের পাশের গাছগুলো কাটতে গেলে হঠাৎ দেখা যায় একটি গাছ থেকে রক্ত নিসৃত হচ্ছে! কুসংস্কারাচ্ছন্ন মানুষ মনে করেছিল মন্দিরের গাছ কাটার কারণে এমন হচ্ছে। তারপর থেকে ঐ মন্দিরের চৌহদ্দীতে কেউ ভিড়তো না।

কিছু উদ্ভিদের রেজিনে প্রচুর পরিমাণে আয়রন অক্সাইড বিদ্যমান থাকায় এদের রেজিন রক্তের মতো লাল হয়। লক্ষ্যণীয় যে একই কারণে মানুষের রক্তও লাল হয়। মানুষের রক্তের হিমোগ্লোবিনে প্রচুর পরিমাণে আয়রন অক্সাইড থাকে যা রক্তকে লাল করে। এ ধরনের গাছকে কাটলে দ্রুত বেগে রেজিন বের হয় যা রক্তের ধারার মতো দেখায়। এমন বৈশিষ্ট্যধারী কিছু গাছ সম্পর্কে নিচে আলোচনা করা হলো।

চিত্রঃ কাটা গাছের কান্ড হতে নিসৃত রক্তের মতো রেজিন।

ড্রাগন ব্লাড ট্রিঃ এটি অতি বিরল প্রজাতির গাছ। গ্রীক উপকথা অনুসারে, হারকিউলিস যখন ভয়ঙ্কর ড্রাগন লাডনকে হত্যা করেন তখন ঐ ড্রাগনের রক্ত থেকে এ গাছের উৎপত্তি। এ উপকথার কারণে গাছটির এমন নামকরণ। বিজ্ঞানীদের মতে, এ গাছ একসময় সারা বিশ্বের সাবট্রপিক্যাল তথা কর্কটক্রান্তি ও মকরক্রান্তি রেখার নিকটবর্তী অঞ্চলের বনভূমিতে পাওয়া যেত। কিন্তু বর্তমানে ইয়েমেনের দ্বীপ সকোত্রা ও কেনারী আইল্যান্ডে সামান্য কিছু গাছের দেখা মিলে।

চিত্রঃ ড্রাগন ব্লাড ট্রি

Desert bloodwood tree: এ গাছের কান্ডের ফাটল থেকে রক্তের মতো রেজিন বের হয়। অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার মরুভূমিতে এদের দেখা মিলে। অস্ট্রেলিয়ার আদিবাসী গোষ্ঠী এ রেজিন সংগ্রহ করে রাখে। এ ধরনের রেজিনের শক্তিশালী জীবাণুনাশক গুণ রয়েছে। তাই আদিবাসীরা এ রেজিন ক্ষত নিরাময়ে ব্যবহার করে।


চিত্রঃ ডেজার্ট ব্লাড উড ট্রি ও এই গাছের ফাটল হতে নিঃসৃত লাল রেজিন।

Rainforest dragon blood tree: সম্প্রতি অ্যামাজন বনের গভীরে এক ধরনের গাছ আবিষ্কৃত হয়েছে যা থেকে ড্রাগন ব্লাড ট্রির মতো রেজিন বের হয়। রেইন ফরেস্টের মধ্যে পাওয়া এবং ড্রাগন ব্লাড ট্রি-র মত হওয়ায় এর নাম দেয়া হলো Rainforest dragon blood tree।

চিত্রঃ বামে ড্রাগন ব্লাড ট্রি কাটার ফলে রক্তের ধারার মত নিসৃত লাল রেজিন ও ডানে ডেজার্ট ব্লাড উড ট্রির কর্তিত কাণ্ড।

ক্ষুদে বড়লা বাংলাদেশ হতে বিলুপ্ত এ গাছ থেকে লাল রংয়ের রস নিসৃত হয়। এ গাছটি বাংলাদেশের এন্ডেমিক উদ্ভিদ ছিল। এন্ডেমিক প্রাণী বা উদ্ভিদ বলতে বুঝায় ঐ প্রাণী বা উদ্ভিদ কোনো নির্দিষ্ট অঞ্চল ছাড়া আর কোথাও পাওয়া যায় না। যেমন, রয়েল বেঙ্গল টাইগার ভারত উপমহাদেশের এন্ডেমিক প্রাণী।

তথ্যসূত্রঃ

  1. en.wikipidia.org/wiki/Ladon_(mythology)
  2. en.wikipidia.org/wiki/Dracaena_draco
  3. আবুল হাসান রচিত উচ্চমাধ্যমিক জীববিজ্ঞান, ১ম পত্র

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *